tanoreordinaryit.com https://www.tanoreordinaryit.com/2023/08/blog-post_39.html

সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয়

দিনে দিনে প্রযুক্তি এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছেছে যে তা বলার মত কোন অবকাশ নেই কিন্তু সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয়, আপনি ভাবছেন যে একটা পুরাতন ল্যাপটপ ক্ষয় করবেন অবশ্যই সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয় তা সম্পর্কে আপনাকে ভালোভাবে আগে জানতে হবে, ভবিষ্যতে তথ্যপ্রযুক্তি এমন এক পর্যায়ে দাঁড়াবে যে একসময় আপনি ইন্টারনেট ছাড়া চলতে পারবেন না,
অনলাইনে কিংবা অফলাইনে আবার ধরুন শহর বা মফস্বলে বাহির থেকে আনা ব্যবহৃত ল্যাপটপ ইউজ ল্যাপটপ বা পুরাতন ল্যাপটপ এর দোকান থেকে শুরু করে বিজ্ঞাপন বা বিভিন্ন প্রচার প্রচার প্রচারণা দেখতে পাওয়া যায় তাই ব্যবহারকৃত ল্যাপটপগুলো কেনার আগে তার সম্পর্কে আগে জানতে হবে, পুরাতন ল্যাপটপ বা ইউজ ল্যাপটপ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা,

পোস্ট সূচীপত্র: সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কিনার আগে যা যা করণীয়

  • ভূমিকা
  • পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে কি কি জানা জরুরী
  • কিবোর্ড চেক করুন
  • সর্বদা অনলাইন রিভিউ দেখে নিন
  • ক্যামেরা এবং অডিও কোয়ালিটি চেক করুন
  • সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয়
  • কেনার সময় যা যা চেক করবেন
  • ট্রানজেকশন প্রুফ দেওয়ার দাবি করুন
  • কোনও গভীর ক্যাশ আছে কিনা নিশ্চিত করুন
  • পুরাতন ল্যাপটপ কিনা নিয়ে আমাদের শেষ কথা

ভূমিকা:

বর্তমানে ইউজ ল্যাপটপের অনেক চাহিদা বেড়েছে আমাদের বাংলাদেশে ইউজ ল্যাপটপ বা সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ প্রচুর পরিমাণে পাওয়া যায় কেননা আমাদের দেশে লাগেজ ল্যাপটপ নামে এগুলোকে ব্যবহার করা হয় লাগেজ ল্যাপটপ কেন বলা হয় বাইরে থেকে আসার সময় কোন এক ব্যক্তি দুইটা বা পাঁচটা ল্যাপটপ নিয়ে আসে সেটাকে আমরা বলে থাকি সাধারণত লাগেজ ল্যাপটপ আর সেই ল্যাপটপগুলোর অনেক চাহিদা আছে,

পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে কি কি জানা জরুরী:

বর্তমান সময়ের ল্যাপটপ সহ অন্যান্য ইলেকট্রিক্যাল পণ্যর দাম হু হু করে বাড়ছে আর আমাদের দেশের মধ্যে এমন অনেকেই আছে যারা টুকটাক কাজ জন্য পুরাতন ল্যাপটপ কিনতে চান কিন্তু নতুন একটি নতুন ল্যাপটপ কিনতে গেলে অনেক টাকার দাম তার জন্য তারা নতুন ল্যাপটপ ব্যবহার করতে পারেনা, তাই তারা সাধারণত লাগেজ ল্যাপটপ ব্যবহার করে থাকে, যাকে সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ বা পুরাতন ল্যাপটপ বলা হয়,

তবে এই পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে আমরা একটি কনফিউজের মধ্যে পড়ে যায় সেটি হলো পুরাতন ল্যাপটপ কেনার পরে আমরা ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারব কিনা সেটা নিয়ে আমরা অনেক চিন্তিত হয়ে পড়ি ল্যাপটপটা কেমন হবে ল্যাপটপটা ইউজ করতে পারবো কিনা আমরা অনেক ধরনের চিন্তাধারা ধারণা করি,
যেগুলো অনুসরণ করার মাধ্যমে আপনি অনেক মানসম্মত কোয়ালিটির পুরাতন ল্যাপটপ কিনতে পারবেন, আর সেই বিষয়গুলো নিয়ে এবার আমি ধাপে ধাপে আলোচনা করব,

কিবোর্ড চেক করুন:

যেহেতু আপনি একটি সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ কিনার চিন্তা-ভাবনা করছেন সে তো অবশ্যই আপনাকে তার সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে হবে, সে তো অবশ্যই একটা কথা মাথায় রাখবেন আর সেই কথাটি হল প্রায় অধিকাংশ পুরাতন ল্যাপটপ এর মধ্যে কমন একটি সমস্যা দেখা যায়, সেটি হল কিবোর্ডের সমস্যা.
অর্থাৎ পুরাতন ল্যাপটপের কিবোর্ডগুলোতে এমন অনেক ধরনের বাটন থাকে যেগুলো একেবারেই নষ্ট, কিন্তু আপনি যতই পুরাতন ল্যাপটপ কিনুন না কেন. এই ধরনের নষ্ট বাটুল যুক্ত কীবোর্ড এর ল্যাপটপ কেনা থেকে বিরত থাকবেন আর একটি চেক করার জন্য আপনার পুরাতন ল্যাপটপের প্রত্যেকটি বাটন ব্যবহার করে দেখবেন, যদি আপনার পেশ করার সাথে সাথে বাটন গুলো সঠিক আউটপুট প্রদান করে তাহলে আপনাকে বুঝতে হবে যে সেই কিবোর্ড এর মধ্যে থাকা বাটন গুলো এখনো সচল রয়েছে,

আর আপনি এই পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনার সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপের কিবোর্ড এর কোয়ালিটি চেক করতে পারবেন. এর পাশাপাশি আপনি অনলাইনের মাধ্যমে এমন অনেক ওয়েবসাইট দেখতে পারবেন যে ওয়েবসাইট গুলোতে থেকে সব সহজে একটি ল্যাপটপ কিবোর্ড চেক করার যায়,

সর্বদা অনলাইনে রিভিউ দেখে নিন:

বর্তমান সময় আপনি যখন কোন ধরনের ইলেকট্রিক্যাল অন্য ক্রয় করার চিন্তা-ভাবনা করছেন তখন অবশ্যই সে পূর্ণ সম্পর্কে অনলাইনে রিভিউ দেখে কিনে নিবেন কারণ অনলাইনে সে পণ্যের রিভিউ বা বিস্তারিত জেনে তারপরে সে পূর্ণটা কিনা চিন্তা ভাবনা করবেন, সেটি আপনার মত অনেক মানুষ আগে কিনে নিয়েছে. আর আপনি যদি পুরাতন ল্যাপটপ কিনতে চান অবশ্যই আপনার কাঙ্খিত ল্যাপটপের মডেল সম্পর্কে যখন অনলাইনে থেকে রিভিউ জানবেন,

এবং কিনে নেওয়ার পূর্বে সেটি ব্যবহার করার পর তাদের কেমন লাগছে সেগুলো ফিডব্যাক দিয়েছে. তখন আপনি বুঝতে পারবেন যে মানুষ আপনার ল্যাপটপ কেনার পরে কতটা ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারছে এর পাশাপাশি সেই ল্যাপটপের মধ্যে যদি কোন ধরনের সমস্যা থাকে তাহলে কিন্তু আপনি এই অনলাইনে রিভিউ থেকে পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে জেনে নিতে পারবেন,

আর সেই কারণেই পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে সর্বপ্রথম সেই ল্যাপটপ এর মডেল সম্পর্কে অনলাইনে রিভিউ দেখে নিতে হবে তাতে করে আপনি সেই ল্যাপটপের কনফিগারেশন সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারলেন এবং তার ভালো দিক সম্পর্কে জানতে পারলেন তাই অবশ্যই ইলেকট্রিক্যাল সেকেন্ড হ্যান্ড জিনিস কেনার আগে অনলাইনে রিভিউ দেখে কিনবেন

ক্যামেরা এবং অডিও কোয়ালিটি চেক করুন:

যখন আপনার কাছে একটি ল্যাপটপ থাকবে তখন অবশ্যই আপনি সেই ল্যাপটপ এর মধ্যে অনলাইনের আপনার বন্ধুদের সাথে ভিডিও কলে কথা বলতে পারবেন কিনা সেটা সম্পর্কে জেনে নিবেন আর সেই ল্যাপটপ কেনার পরে আপনি অবশ্যই আপনার বন্ধু বান্ধবের সাথে অনলাইনে ভিডিও কলে কথা বলতে চাইবেন, কিন্তু আপনার কিনে নেওয়ার পুরাতন ল্যাপটপের ক্যামেরা যদি খারাপ হয় তখন তো আপনি ভিডিও কলে কথা বলতে পারবেন না,
আর যে সকল ল্যাপটপ দীর্ঘদিনের পুরানো খারাপ থাকে তাই অবশ্যই আপনি এই বিষয়টির দিকে যথাযথ গুরুত্ব দিবেন এর পাশাপাশি আপনার কিনে নেওয়ার ল্যাপটপের অডিও কোয়ালিটি কতটা মানসম্মত সেটাও চেক করে নিবেন. তাই অবশ্যই পুরাতন ল্যাপটপ কেনার সময় ক্যামেরা ও অডিও কল কোয়ালিটি যথেষ্ট গুরুত্ব সাথে যাচাই করবেন তারপর পুরাতন ল্যাপটপ কেনার কথা ভাববেন,

সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয়:

বর্তমান যুগে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা অসংখ্য বা এটা দিনে দিনে বৃদ্ধিমান বর্তমানে যে জিনিস একবার বিদ্যমান হয় সেটা আর কমে না. অতীতের তুলনায় বর্তমানে প্রত্যেকটা মানুষ ইন্টারনেটের ওপর নির্ভরশীল. তাই এখন ইন্টারনেট ছাড়া অনেক লোক চলতেই পারে না প্রযুক্তির অসামান্য একটি অবদান হচ্ছে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ বর্তমানে কম্পিউটার ল্যাপটপ দিয়ে.
এমন কোন কাজ নেই যে কাজটা করা যায় না বর্তমান যুগে কম্পিউটার ব্যবহার করে মুহূর্তের মধ্যেই গাণিতিক সমস্যার সমাধান করা যায়, এটা নিঃসন্দেহে বলা যায় এটা একটা বিজ্ঞানীর সুফল পাওয়া যাচ্ছে কারণ দিনে দিনে বিজ্ঞানীর আবিষ্কৃত সুফল আমরা পেয়ে থাকি এছাড়া কেউ কেউ এই কম্পিউটার নিজের ইনকামের জন্য ব্যবহার করে থাকে. তাই আপনি যদি ভেবে থাকেন আপনি একটা পুরাতন বা সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয় সে সম্পর্কে জেনে তারপরে ক্রয় করবেন,

কেনার সময় যা যা চেক করবেন:

এখন আপনাদের মাঝে তুলে ধরব ল্যাপটপ কেনার সময় আপনারা দোকানে গিয়ে কোন কোন জিনিসগুলো অবশ্যই দেখে নিবেন বা আপনাদের দেখা নেওয়া উচিত

স্পেসসিফিকেশন ও মডেল:

আপনাদের পছন্দ হওয়া মডেলের নাম দোকানদারের যা বলছে ও প্রকৃতপক্ষে ডিভাইসে কি রেজিটেশন করা আছে কিনা সেটি মিলিয়ে নিন অপরদিকে একই সাথে স্পেসিফিকেশন তাও চেক করে নেন ল্যাপটপটি চালু করুন এরপর window s smart থেকে সফটওয়্যার টাইপ করুন সিস্টেম ইনফরমেশন সিলেট করুন এখানে সবকিছু পেয়ে যাবে.আপনারা সেই ল্যাপটপের মডেল কি ব্যান্ড কোনটা কমপ্লেটিক্স এক্স ক্রেডিশন ডিপ্রেশন অংশ কোন ডিসকানেক্ট গ্রাফিক্স আছে কিনা চেক করতে পারবেন,

সাধারণত দোকানে আপনাকে শুধু জেনারেশন উনি বলবে এক্ষেত্রে ও প্রেষণার চেক করে নিবেন কেন একাধিক এবং আপনার পছন্দের ল্যাপটপটি কেনার আগে ল্যাপটপটি ভালোভাবে চালিয়ে নিবেন এবং ল্যাপটপটি আপনি যে কাজের জন্য কিনতে চাচ্ছেন সে কাদের জন্য উপযোগী কিনা সেটা দেখে নিবেন কনফিগারেশনাল বা রেম রুম চেক করে নিবেন কারণ সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ কেনার সময় আপনাকে দোকানদার অনেক কিছু বোঝাবে,

ব্যাটারি:

সেকেন্ড হ্যান্ড ল্যাপটপ কেনার আগে অবশ্যই ল্যাপটপের ব্যাটারিটা চেক করে নেবেন দোকানে আপনাকে ল্যাপটপের সাথে যে অ্যাডভাইজার দিচ্ছে সেটি ল্যাপটপে আছে কিনা সেটা চেক করে নিবেন আপনি অবশ্যই ওই দোকানের বসে ব্যাটারিটি কিছুক্ষণ চালিয়ে দেখুন ব্যাটারিটি কতটুকু কি পরিমানে ড্রয়িং হচ্ছে বা অতিরিক্ত ডেইয়িং হচ্ছে কিনা বোঝার চেষ্টা করুন যদি দেখেন নিমেষেই ব্যাটারিটি লেভেল নেমে যাচ্ছে তাহলে ল্যাপটপটি নেওয়া থেকে বিরত থাকুন,

ল্যাপটপের এডাপ্টার ও চার্জিং:

দোকানে আপনাকে ল্যাপটপের সাথে যেই অ্যাডাতর দিয়েছে সেটি ল্যাপটপের সাথে কানেক্টেড করুন দেখুন চার্জ নিচ্ছে কিনা, চার্জিং স্ল ো নাকি নরমাল সেটিও চেক করুন এক্ষেত্রে আমি বলব ব্যাটারিটি হেলথ ঠিক রাখার জন্য যেহেতু সঠিক এডাপ্টার ব্যবহার করা জরুরী সেতু আপনার ল্যাপটপের মডেল ইন্টারনেটের সার্চ করে মিলিয়ে নিন এতে করে আপনার ল্যাপটপের লম্বি ব্লিষ্ট বেড়ে যাবে,

ট্রানজেকশন প্রুফ দেওয়ার দাবি করুন:

আপনি মনে মনে সিদ্ধান্ত করছেন একটা সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ ক্ষয় করবেন আপনি যখন ল্যাপটপ কিনতে যাবেন তখন আপনাকে আরো বেশি বিষয়টি সম্পর্কে যথেষ্ট জানতে হবে অর্থাৎ আপনি যে মালিকের কাছ থেকে পুরাতন ল্যাপটপ কিনছেন, বা যার কাছ থেকে ল্যাপটপ কিনবেন তার কাছে ল্যাপটপের বৈধতা কাগজ পাতি আছে কিনা সে সম্পর্কে আগে জেনে নিবেন বা যাচাই করবেন.

কারণ সেই শোরুমের রশিদ ছাড়া কি না তা অবশ্যই পরামর্শ করে নেবেন না এর পর পাশাপাশি সেই রশিদের মধ্যে থাকা মোবাইল নাম্বারে ফোন করে জেনে নিন আসলে ল্যাপটপটি সেখান থেকে ক্রয় করা কিনা. কারণ সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয় আপনাকে সবগুলো করতে হবে কারণ একটি শখের জিনিস আপনার দুঃখের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে, বৈধতা ছাড়া কোন জিনিস ক্রয় করা বা বিক্রয় করা ঠিক নয়,

কোনও গভীর ক্যাশ আছে কিনা নিশ্চিত করুন:

একটি ল্যাপটপ যখন দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহার করা হয় তাতে কোনো না কোনো দাগ বাকি আজ পড়ে যায় বা সেই ল্যাপটপের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের দাগ পড়ে যায় কিন্তু যখন সেকেন্ড হ্যান্ড বা পুরাতন ল্যাপটপ কিনতে যাবেন অবশ্যই সেগুলো দেখে নিবেন, আপনি যখন ল্যাপটপটি কেনার আগে ভালো করে খুঁটিয়ে দেখে নিবেন কোন দাগ আছে কিনা, পুরাতন ল্যাপটপ কেনার সময় ছি ল্যাপটপের মধ্যে কোন ধরনের বড় সমস্যা আছে কিনা দেখে নিবেন,

আর আপনার যদি আগে থেকেই ল্যাপটপ সম্পর্কে জ্ঞান ধারনা থাকে তাহলে এই ধরনের ল্যাপটপের মধ্যে থাকার সমস্যার সমাধান নিজেই করতে পারবেন আর আপনার যদি প্রথম ল্যাপটপ বা ল্যাপটপ এর প্রতি কোন জ্ঞান ধারণা না থাকে তাহলে একজন ল্যাপটপ সম্পর্কে বুঝে এমন কারো পরামর্শ নিবেন, তাই যখনই আপনি পুরাতন ল্যাপটপ কয় করবেন তখন অবশ্যই আপনার সাথে একজনকে নিয়ে যে অভিজ্ঞ কাউকে ল্যাপটপ সম্পর্কে দেখাবে.

পুরাতন ল্যাপটপ কিনা নিয়ে আমাদের শেষ কথা:

পুরাতন বাজে কেনা ল্যাপটপ সম্পর্কে আমরা আগেই উপরে আলোচনা করেছি. আমরা শখের বশে না জেনে অনেক বড় বড় ভুল করে ফেলি. অবশ্যই আমরা এক্সাইটেড হয়ে এমন কোন ভুল করবো না যেটার মাশুল আমাদেরকে সারা জীবন দিতে হয়. আপনি যদি পুরাতন ল্যাপটপ কেনার কথা চিন্তা করে থাকেন, আমি আপনাকে নিজে থেকে একটা পরামর্শ দিব যে আপনি আর কিছু টাকা জোগাড় করে নতুন ল্যাপটপ কেনার চিন্তাভাবনা করেন,

তবে পুরাতন ল্যাপটপ কেনার আগে যা যা করণীয় সেগুলো সব কাজগুলো করে আপনি অবশ্য অনুসরণ করতে পারেন, আর আজকের আলোচনায় যদি আপনি আমাদের পোস্টটি পড়ে উপকৃত হয়ে থাকেন অবশ্যই আমাদের পোস্টটি সম্পর্কে অন্যদের সাথে আলোচনা করবেন এবং প্রতিনিয়ত আমাদের ওয়েবসাইটটা ভিজিট করবেন. আমাদের ওয়েবসাইটে পরামর্শ গুলো আলোচনা করা হয়ে থাকে অবশ্যই সে সম্পর্কে অন্যকে অবহিত করবেন,

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া